Tuesday , November 12 2019
Breaking News
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
Home / Tips & Tricks / আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট প্রমোট করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ১০টি টিপস ।

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট প্রমোট করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ১০টি টিপস ।

আপনার ওয়েব সাইট বা ব্রান্ডকে প্রোমোট করার জন্য অনলাইন এ হইত প্রায়ই আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ আপনার সাইট প্রোমোট কিভাবে করা যাই তার উপায় খুঁজে থাকেন । আর ভালো ভালো মার্কেটিং সাইটগুলো ঘাঁটতে গেলে একটা কমন উপায় আপনার চোখে পড়ার কথা । সেটা হল – একটি  ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগের মাধ্যমে আপনার ব্যবসাকে অন্য লেভেলে নিয়ে যাওয়া। তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে এটিকে অন্যতম আকর্ষণীয় মার্কেটিং পলিসি হিসেবে ধরা যায় ।

কি আপনার বিশ্বাস হচ্ছে না । তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক ,  একটা জরিপে চোখ বুলিয়ে দেখতে পাচ্ছেন যে একটা ব্যবসায়ে না কোম্পানির একটা ব্লগ থাকে তাহলে তারা ব্লগবিহীন ব্যবসা প্রতিঠানের তুলনাই ৫৫% বেশী ভিজিটর পায় ।

প্রায় ৩৭ % মার্কেটার মনে করে যে  কন্টেন্ট মার্কেটিং এর সবচেয়ে বড় হাতিয়ার একটা ব্লগ । আর ইন্টারনেটের দুনিয়ায় বেশিরভাগ successful ব্যবসায়ী

মনে করেন তাদের ব্লগটিকে কাস্টোমারদের কাছে যাবার অন্যতম মাধ্যম হিসেবেই মনে করেন । কিন্তু শুধু একটা ব্লগ থাকলেই আপনার সাইট এ

ভিজিটর আসবেনা । এই ভিজিটর আনার জন্য আপনাকে বেশ কিছু কাজ করতে হবে । এমনি ১০টি গুরুত্বপূর্ণ টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি তা হলো

 

ব্লগের মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটকে  প্রোমোট করার জন্যে গুরুত্বপূর্ণ ১০টি টিপস । 

০১ . ব্লগ পোস্টে  keyword এর যথাযথ ব্যবহার :- আপনি সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন (SEO) না জানলে অবশ্য এটার কথা আগে নাও জানতে

পারেন । তো সহজ ভাষায় বলা যাক । আমরা যখন কোন একটা টপিক নিয়ে আমাদের ব্লগে পোস্ট করি । সে পোস্টে ভিজিটর আসে মূলত  গুগুল বা

অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে । কিন্তু , কোন বিষয়ের উপর আপনার আর্টিকেলটি লিখা তা একটা সার্চ ইঞ্জিন কিভাবে বুঝবে? এটা গুগুল বা অন্য সার্চ

ইঞ্জিনকে বোঝাতে গেলে , মানুষ সার্চ করে এমন কিছু টার্ম আপনার পোস্টের টাইটেলে, ইউআরএল-এ, মূল লেখায় ইত্যাদি স্থানে ইঙ্কুড করতে  হবে ।

খন কথা হল আপনি কি করে জানবেন মানুষ কি লিখে সার্চ করে । এটা জানার জন্যেও গুগুল একটা টুল রেখেছে । এটা হল গুগুল কি-ওয়ার্ড প্ল্যানার 

এই টুলের মাধ্যমে আপনি আপনার পোস্টের টপিকের সাথে রিলেভেন্ট  বেশি সার্চ  হওয়া টার্মগুলো জানতে পারবেন এবং সেগুলো দিয়ে আপনার

পোস্টকে মডিফাই করে খুব সহজেই অনেক ভিজিটর পেতে পারবেন । তবে একটা জিনিস মনে রাখতে হবে  , জাতে আপনার পোস্টে একাধিক

কিওয়ার্ড ব্যবহার না করে ফেলেন।

 

০২ . আপনার ওয়েব সাইটকে ইনবাউন্ড মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রোমোট করা :- শুরুতেই ইনবাউন্ড মারকেটং কি তা জেনে নেয়া যাক। আপনার

ওয়েবসাইট দিয়ে কার্যকরী ও অসাধারন কন্টেন্টের মাধ্যমে আপনার পণ্য বা সার্ভিস গ্রাহকদের বা ব্যবহার কারীদের কাছে পৌছে দেয়ার নামেই

ইনবাউন্ড মার্কেটিং । আর এই অসম্ভব রকমের ইফিশিয়েন্ট হবার জন্যে এই ইনবাউন্ড মার্কেটিংয়ের জনপ্রিয়তা বিশ্বজুড়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে । এ জন্যই

ব্লগিংকে  ইনবাউন্ড মার্কেটিং এর সবচেয়ে জনপ্রিয় হাতিয়ার হিসেবে বিবেচনা করা হয় । ব্লগের মাধ্যমে আপনি আপনার কাংখিত কাস্টোমারদের জন্যে

অসাধারন ও প্রয়োজনীয় কন্টেন্টর  মাধ্যমে সহজেই আপনার পন্য, সার্ভিস বা ওয়েব সাইট টি প্রোমট করে ফেলতে পারবেন । আর একটা ব্লগের বিশেষ

সুবিধা হল – এখানে আপনি নতুন গ্রাহকের কাছে খুব সহজেই পৌঁছে যেতে পারবেন ।

 

০৩ . গ্রাহকদের ইমেইল কালেকশন বা সংগ্রহ :-  আপনি গ্রাহকদের ইমেইল সংগ্রহ করে খুব সহজেই যেকোন প্রতিযোগিকে পেছনে ফেলতে

পারবেন । কারন ইমেইল হল ১ টু ১  গ্রাহকদের সাথে যোগাযোগ করে ।  তাই আপনার ব্লগ ট্রাফিককে কাজে লাগাতে চাইলে আপনার ভিজিটরদের

ইমেইল লিস্ট সংগ্রহ করার চেয়ে বুদ্ধিদীপ্ত কাজ আর কিছুই হতে পারে না ।  কিন্তু, আমাদের অনেকেই ইমেইল সংগ্রহ করে গ্রাহকদের শুধু পন্য বা

সার্ভিস নিয়েই মেইল করি । এত করে লাভের চেয়ে লসের সম্ভাবনাই বেশি হয়ে থাকে । তাই  আপনাকে অবশ্যই ইমেইলের মাধ্যমে ভ্যালু Provide

করতে হবে । তা না হলে  আপনার ইমেইল কদিন পরে customer বিরক্তির ফলে স্পাম ফোল্ডারে যায়গা করে নিবে। যেটা আপনার সুনামের জন্যেও

বেশ হুমকিস্বরুপ । তাই মনে রাখবেন ‘value first’

 

০৪ . বিভিন্ন সোশিয়াল সাইটে আপনার পণ্য বা সার্ভিস সম্পর্কে পোস্টদেয়া :-  গ্রাহকদের কাছে টানার জন্যে এটি আরেকটি কার্যকরী উপায়।

আপনি আপনার ব্লগে ভিজিটর দের কাছে জানতে চাইবেন তারা আপনার পন্য বা সার্ভিস নিয়ে কি ভাবছে । কারন যেকোন প্রকার মতামত, রিভিউ,

মন্তব্য ও উৎসাহ আপনার বিজন্যাসকে অন্য লেভেলে নিয়ে যেতে পারে । কারন , আপনি আপনার ব্যবসা নিয়ে কি ভাবছেন তা আসল কথানা, বরং

আপনার গ্রাহকগন আপনার ব্যবসাকে কিভাবে নিচ্ছেন তার উপরেই আপনার সফলতা নির্ভর করবে ।  তা আপনি আপানর সার্ভিসগুলো গ্রাহকদের

কাছে পোছেদেরবার জন্য বিভিন্ন সোসিয়াল সাইটে বিস্তারিত আপানর গ্রাহকদের জানাবেন এবং গ্রাহকদের সার্ভে বা ভোট দেয়ার ব্যবস্থা করতে পারেন।

এ জন্যে আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে Opinion Stage  নামের এই প্লাগিনটি ইউজ করতে পারেন ।

 

০৫ . আপনার সাইট প্রমোট করার জন্য বিভিন্ন বিষয় নিয়ে চিন্তা করেন :-  অনেকেই বলতে পারেন আমিই যদি চিন্তা করি তাহলে আপনার ব্লগ

পড়তেছি কেন । আসলে একটা কথা আছে নিজে যদি তার পণ্য বা কি ওয়েব সাইট সে গ্রাহকদের নিকট পৌছেদিতে চাচ্ছে তার সেই বিষয়ে একটা

ভালো ব্লগ ছবি সহ পোস্ট করতে হবে বিভিন্ন সোসিয়াল সাইট এ । এবং অন্য প্রতিযোগী রা কি ভাবে সোসিয়াল বুকমারকিং করছে সেইগুলা ফোলো করে

আপনার সাইট বিভিন্ন সাইটে ব্লগ পোস্ট করতে হবে। ব্লগ পোস্ট আপনার পণ্য বা সার্ভিস টি কাংক্ষিত গ্রাহকদের নিকট পৌছে দিবার জন্য গুরুত্তপুণ

ভূমিকা পালন করে । আর তাই আজিই আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে আমরা ব্রান্ডের ইন্টার্নাল ইন্টেরিওয়রের ছবি, আপনার টিমের ছবি, আপনাদের

পোর্টফলিও আর পণ্য/সেবার ফিডব্যাক ইত্যাদি ইনক্লুড করে সহজেই আরো বেশি বিশ্বস্থ হয়ে উঠতে পারেন ।

 

০৬ .  আপনার ব্যবসার বা ওয়েব সাইটের ফিল্ডের আইকনিক লোকজনের সাথে সম্পর্ক করুন :-  প্রতিটা  বিজন্যাস ফিল্ডে কিছু আইকনিক

মানুষ থাকে। আপনি তাদের সাথে যোগাযোগ করুন আর ভাল সম্পর্ক গড়ে তুলুন।আর যখন একটা ভাল পারস্পারিক সম্পর্ক হয়ে যাবে। আপনি

তাদেরকে আপনার ব্লগে লিখতে রিকুয়েস্ট করেন বা তাদের সাথে যৌথভাবে কোন কাজ করেন। এবং আপনার ব্লগে পোস্ট করেন। এটা তাদের জন্যে

অল্প কিছু হলেও আপনার ব্রান্ডের জন্যে নি:সন্দেহে বিশাল কিছু।এতে করে আপনার ব্রান্ড ভ্যালু তো বাড়বেই। তাছাড়া আপনার অপরচুনিটিরর স্বর্গদ্বার

খুলে যাবে এমন বড় বড় মানুষগুলার সাথে কাজ করে। আর তাদের ফলোয়ারগনও আপনার সাইটের ভক্ত হয়ে বিশাল এক সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দিবে

আপনার জন্যে।

 

০৭ . info graphic পাব্লিশ করুন :-  পৃথিবীতে মানুষের ব্যস্ততা জতই বাড়ছে তাদের ব্লগ পড়ার আগ্রহ ততই কমে যাচ্ছে । তাই সবাই ছবি বা

ভিজুয়াল কন্টেন্টের দিকেই ঝুঁকে যাচ্ছে ।কারন কম সময়ে সব জানা গেলে এত সময় নষ্ট করে বড় বড় আর্টিকেল পড়ার মানেই হয়না। আর তাই

এক্ষেত্রে ইনফোগ্রাফিকের চেয়ে আর বেশি ফলপ্রসূ কিছুই হতে পারেনা।আপনার কন্টেন্টগুলো দিয়ে দৃষ্টিনন্দন ভিজুয়াল কন্টেন্ট তৈরী করুন।

ভিজিটর বেড়ে যাবে দ্বিগুন।

 

০৮ . আপনার ব্লগ কন্টেন্ট প্রমোশন করুন :-  আপনি হইত আপনার ওয়েব  সাইটে অসাধারন সব কন্টেন্ট পাব্লিশ করে বসে রইলেন, তাহলে

কিন্তু হবে না আপনার ব্লগটীকে গুগোলর কাছে ইনডেক্স করতে হবে ।আপনার কন্টেন্টের প্রোমোশন না হলে আপনার ভিজিটররা জানবে কি করে

আপনার সাইটে কি কি আছে। তাই পন্যের বিজ্ঞাপনের মতই কন্টেন্টেরও মার্কেটিং করা লাগবে।তো সেটা কিভাবে করা যায়? খুব সোজা! আপনার

আপনার সাইট রিলেভেন্ট সোশ্যাল মিডিয়া কমিউনিটিতে/ গ্রুপগুলোতে আপনার পোস্টগুলো শেয়ার করেন। যেমন -ফেসবুক গ্রুপ বা ইউটিউব

কমেন্ট ইত্যাদি ইত্যাদি ।

 

০৯ . আপানর ব্লগকে বিভিন্ন স্লাইডে পরিনত করতে হবে :-  এটি সাইট প্রমোট করার ক্ষেত্রে গুরুত্ত্বপুণ ভূমিকা পালন করে । আপনি আপনার

সাইটের গুরুত্বপূর্ন পোস্টগুলো থেকে ইনফরমেশন নিয়ে স্লাইড বা পিকচার বানার, আর তাতে একপাশে আপনার সাইটের লগো দিন! ব্যাস যেখানেই

এখন আপনার কন্টেন্ট থাকবে, আপনার ব্রান্ড ভ্যালু বাড়তেই থাকবে। আর পিন্টারেস্ট ও স্লাইডশেয়ারের মত সাইটগুলোতে (যেখানে ভিজুয়াল কন্টেন্ট

পাব্লিশ হয়) মিলিয়ন মিলিয়ন ব্যবসা রিলেভেন্ট ভিজিটর পাবেন। আর তাছাড়া ফেসবুক তো আছেই।

 

১০ . সাইটকে বুকমারকিং এর মাধ্যমে প্রমোট করা :-  আপানার ব্যবসা বা ওয়েব সাইটকে প্রমোট করার জন্য বুকমারকিং আর একটি গুরুত্বপুন

ভূমিকা পালন করে থাকে । ওয়েব সাইটে অনেক ফ্রি ওয়েব ড্রাক্টিরি আছে । ওইখানে আপনার পস্টের লিংক পোস্ট করে১ আপনার সাইট প্রমোট করতে

পারেন ।

             

 

 

     আরো বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চাইলে আপনাদের ফেন পেগে লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন  ধন্যবাদ । 

About Admin